For English Version
রবিবার ১৯ মে ২০২৪
হোম

হাজতবাসের দিনের বেতনের বিল করেছেন বিতর্কিত সেই অধ্যক্ষ

Published : Wednesday, 15 May, 2024 at 3:32 PM Count : 566

জামালপুরেসরিষাবাড়ীতে নির্বাচনী উস্কানিমূলক বক্তব্যের দায়ে বরখাস্ত হওয়ার পরও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে দায়িত্ব পালন করতে না দিয়ে প্রভাব খাটিয়ে স্বপদে বহাল রয়েছেন বিতর্কিত অধ্যক্ষ সাইদুল হাসান। এমনকি জেলবন্দি দিনগুলোর বেতনেও তিনি যথারীতি স্বাক্ষর করে মাসিক বিল (এমপিও) জমা দিয়েছেন ব্যাংকে। ব্যাংক হিসাবে বেতন জমাও হয়ে গেছে।

বুধবার পর্যন্ত চেয়ার দখল করে পূর্বের মতোই স্বাভাবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন পিংনা সুজাত আলী (ডিগ্রী) কলেজের সাময়িক বরখাস্তকৃত ওই অধ্যক্ষ।

এদিকে, বিতর্কিত অধ্যক্ষের প্রভাবে কলেজ ক্যাম্পাসে চাপা অসন্তোষ ও শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করছেন অভিভাবক মহল।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রফিকুল ইসলামের পক্ষ নিয়ে তার উপস্থিতিতে গত ২৩ এপ্রিল রাতে পিংনা ইউনিয়নের নির্বাচনী পথসভায় সুজাত আলী কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুল হাসান সাইদ প্রতিপক্ষের লোকদের দাঁত ও চাপার হাড্ডি ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেন। এ সংক্রান্ত ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল ও গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে ২৭ এপ্রিল দুপুরে গ্রেপ্তার ও জেল হাজতে যান তিনি। এমনকি প্রার্থীর উপস্থিতিতে এমন বক্তব্য দেওয়ায় আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলামের প্রার্থিতা বাতিল হয়। উচ্চ আদালতে গিয়ে রফিকুল ইসলাম প্রার্থিতা ফিরে পেলেও ০৮ মে'র অনুষ্ঠেয় নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে ইসি।
অপরদিকে, বিতর্কিত বক্তব্য ও জেল হাজতে যাওয়ায় সাইদুল হাসানকে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০২১-এর ১৯ ধারা মোতাবেক ২৭ এপ্রিল হতে অধ্যক্ষ পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেন কলেজ পরিচালনা পর্ষদের (গভর্নিং বডি) সভাপতি ও বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. সিদ্দিকুর রহমান। একইসঙ্গে কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. আব্দুল হামিদকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেওয়া হয়। 

এদিকে, সাইদুল হাসান গত বৃহস্পতিবার (০৯ মে) জেল থেকে জামিনে বের হন। গভর্নিং বডির সভাপতি বরখাস্তের চিঠিতে স্বাক্ষর করে হজ পালনের জন্য সৌদি আরব গেছেন। এ সুযোগে জামিনে এসেই বরখাস্তের আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অধ্যক্ষের চেয়ার বসেন সাইদুল হাসান। শনিবার (১১ মে) উপবৃত্তি সংক্রান্ত কলেজের ৩৭ নম্বর নোটিশে স্বাক্ষর ও স্টাফ কাউন্সিলের বৈঠক পরিচালনা, সোমবার (১৩ মে) দুর্ঘটনাকবলিত শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য সংক্রান্ত ৩৮ নম্বর নোটিশে স্বাক্ষর এবং বিগত মাসিক বেতনের (এমপিও) ফাইলেও তিনি অধ্যক্ষ হিসেবে স্বাক্ষর করেন। এমনকি এপ্রিল মাসের শেষ তিন দিন তিনি জেল হাজতে থাকলেও সেগুলোরও বিল তৈরি করে ব্যাংকে জমা দিয়েছেন।

এসব বিষয়ে আবুল হোসেন নামের এক অভিভাবক জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পরিদর্শক বরাবর অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযোগে তিনি জানান, পাঁচ দিনের রিমান্ড ও হাজতবাস করেও বিতর্কিত অধ্যক্ষ স্বপদে বহাল থাকার চেষ্টা করছেন। এতে কলেজের আর্থিকসহ সার্বিক জটিলতা, জনমনে বিভ্রান্তি ও শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।

এ ব্যাপারে অগ্রণী ব্যাংকের সরিষাবাড়ী শাখার ব্যবস্থাপক মো. হামিদুর রহমান বলেন, সুজাত আলী (ডিগ্রী) কলেজের মাসিক বিল অধ্যক্ষ সাইদুল হাসানের স্বাক্ষরেই জমা দিয়েছেন। এছাড়া তার নিজের বিলও বিগত মাসের ৩০ দিনেরই উল্লেখ করেছেন। ইতোমধ্যেই স্ব স্ব ব্যাংক হিসাবে বেতনও জমা হয়ে গেছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে সুজাত আলী (ডিগ্রী) কলেজের অধ্যক্ষ (সাময়িক বরখাস্ত) সাইদুল হাসান সাইদকে মুঠোফোনে কল করা হলে 'ব্যস্ত আছি' বলে কেটে দেন। পরে একাধিকবার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

-জেডজে/এমএ

« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone : PABX- 0241053001-08; Online: 41053014; Advertisemnet: 41053012
E-mail: info$dailyobserverbd.com, mailobserverbd$gmail.com, news$dailyobserverbd.com, advertisement$dailyobserverbd.com,   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft