For English Version
শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, রেজি: নং- ০৬
Advance Search
হোম জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘর পাচ্ছে ৬৬ হাজার ১৮৯ পরিবার

Published : Friday, 22 January, 2021 at 9:28 PM Count : 76
অবজারভার প্রতিবেদক

ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল অসহায় জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসনের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় এক হাজার ১৬৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যয়ে জমিসহ ঘর পাচ্ছে ৬৬ হাজার ১৮৯টি পরিবার।  আগামীকাল শনিবার (২৩ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব পরিবারের কাছে ঘর হস্তান্তর করবেন।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমেদ কায়কাউস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জেল হোসেন মিয়া ও আশ্রয়ণ প্রকল্পের পরিচালক মাহবুব হোসেনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আহমেদ কায়কাউস বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন মুজিববর্ষে কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না। প্রতিটি পরিবারকে আলাদাভাবে ঘর করে দেয়ার কর্মসূচি নিয়েছেন। করোনার মধ্যে ছয়মাসেরও কম সময়ে এসব ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। এসব ঘর নির্মাণে ব্যবহৃত হচ্ছে দুই হাজার ৯৮ একর সরকারি খাস জমি। 

এসব বাড়িতে সুপেয় পানি ও বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এসব বাড়ির বাসিন্দাদের কর্মসংস্থানের জন্য আশপাশে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। আমি মনে করি, মুজিববর্ষের অসাধারণ ঘটনা। সরকারি উদ্যোগে ছিন্নমূল মানুষকে পুনর্বাসন করার নজির পৃথিবীতে এ প্রথম।  প্রধানমন্ত্রীর দর্শন হচ্ছে, কাউকে যদি ছাদ দেয়া হয় তার মাধ্যমে তার দারিদ্র্য বিমোচনের ভিত্তি স্থাপিত হয়। আত্মসম্মান প্রতিষ্ঠিত হওয়ার মাধ্যমে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়।

জানা গেছে, তিনটি প্রকল্পের মাধ্যমে এ ঘরগুলো দেয়া হচ্ছে। আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ৪১৯ কোটি ৬০ লাখ টাকায় তৈরি করা হয়েছে ২৪ হাজার ৫৩৮টি ঘর। দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের দুর্যোগ সহনশীল ঘর নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ৬৫৯ কোটি ৮২ লাখ টাকায় ৩৮ হাজার ৫৮৬টি ঘর ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের আওতায় ৫২ কোটি ৪১ লাখ টাকায় তিন হাজার ৬৫টি ঘর তৈরি করা হয়েছে। প্রকল্পগুলোতে মোট ব্যয় হয়েছে এক হাজার ১৬৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালের ১৯ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজার জেলাসহ পার্শ্ববর্তী এলাকা ঘূর্ণিঝড়ে আক্রান্ত এলাকা পরিদর্শনে যান। তিনি মানুষের দুঃখ দুর্দশা দেখে অত্যন্ত সহানুভূতিশীল হয়ে পড়েন এবং সকল গৃহহীন পরিবারসমূহকে পুনর্বাসনের তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ১৯৯৭ সালে ‘আশ্রয়ণ’ নামে একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। এ প্রকল্পে মাধ্যমে ৯৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩৮৪০.৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৯৮,২৪৯টি ভূমিহীন-গৃহহীন-অসহায়-ছিন্নমূল পরিবারকে পুনর্বাসন করেন। এছাড়া ২৭৫,৬৫৬ জনকে আয়বর্ধক পেশাভিত্তিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। ১৩৮,৭১৮টি পরিবারকে ঋণ প্রদান করেন। সবুজায়নের লক্ষ্যে প্রতিটি প্রকল্পগ্রামে ফলদ, বনজ ও ঔষধি বৃক্ষরোপণ করা হয়ে থাকে। প্রকল্পগ্রামে বসবাসরত উপকারভোগীদের জীবনমান সহজীকরণের জন্য বিদ্যুৎসংযোগ প্রদান, সুপেয় পানি ও স্যানিটেশনের ব্যবস্থা রয়েছে।

সম্পূর্ণ বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে ১ম পর্যায়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পে জুলাই, ১৯৯৭- জুন, ২০০২ মেয়াদে ৩০০.০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪৭,২১০টি এবং পরবর্তীতে উক্ত প্রকল্পের ধারাবাহিকতায় ২য় পর্যায়ে  আশ্রয়ণ প্রকল্প (ফেইজ-২ ) এ জুলাই, ২০০২-ডিসেম্বর, ২০১০ মেয়াদে ৬০৮.০০ কোটি টাকা ব্যয়ে কোটি টাকা ৫৮,৭০৩ টি ভূমিহীন পরিবার ব্যারাকে পুনর্বাসন করা হয়েছে।

প্রকল্পের সাফল্য ও ধারাবাহিকতায় জুলাই, ২০১০ - জুন, ২০২২ (সংশোধিত) মেয়াদে ২.৫০ লক্ষ ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল অসহায় পরিবার পুনর্বাসনের লক্ষ্যে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের মাধ্যমে ২৯৩২.৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৯২,৩৩৬টি পরিবার পুনর্বাসন করা হয়েছে। (তন্মধ্যে ৪৮,৩২৫ টি ভূমিহীন পরিবার ব্যারাকে পুনর্বাসন করা হয়েছে, ভিক্ষুক পুনর্বাসনসহ “নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ কর্মসূচির” আওতায় ১৪৩,৭৭৭টি পরিবারকে তাঁদের নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পরিবারের জন্য ২৩৪টি টং ঘর ও বিশেষ ডিজানের ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে)।

এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft