For English Version
বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১, রেজি: নং- ০৬
Advance Search
হোম সারাদেশ

গ্রামবাসীর ধাওয়ায় গুলিভর্তি ম্যাগজিন ফেলে পালিয়েছে সন্ত্রাসীরা

Published : Tuesday, 1 December, 2020 at 2:55 PM Count : 334
অবজারভার সংবাদদাতা

যশোরেচৌগাছায় একটি সরকারি বিলে অবৈধ ভাবে মাছ ছাড়তে গিয়ে এলাকাবাসীর ধাওয়ায় গুলিভর্তি ম্যাগজিন ফেলে পালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

সোমবার উপজেলার পাশাপোল ইউনিয়নের কালিয়াকুন্ডি গ্রামে সরকারি এড়োলের বিলে এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় চৌগাছা থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি রিফাত খান রাজীব।

গ্রামের মইনুর হোসেন, ওমর ফারুক, জাফর আলী ও আয়ুব আলী জানান, এড়োলের বিলে সরকারি জমি দখল করে মাছ চাষ করে আসছিল স্থানীয় নারী ইউপি সদস্য মোমেনার স্বামী জুল হোসেন ও তার ছেলেরা। সরকারি বিলে বেড়িবাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করায় এলাকার গোপিনাথপুর, বড়-কুলি, দশপাকিয়া, রঘুনাথপুর, মৎস্যরাঙ্গা ও বুড়িন্দিয়া গ্রামের কয়েকশ একর জমির ফসল বর্ষা মৌসুমে পানির নিচে তলিয়ে যায়।

প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসী সরকারি বিল অবমুক্তকরণের জন্য গত ০১ জুলাই চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও যশোর জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি দেয়। তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম ও এসি ল্যান্ড নারায়ণ চন্দ্র পাল ২৩ জুলাই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ৩০ জুলাই বিলটি অবমুক্ত ঘোষণা করেন। সেই থেকে সরকারি বিলটি অবমুক্ত ছিল।

সোমবার দুপুর ২টার দিকে জুল হোসেন ও তার বড় ছেলে মজনুর নেতৃত্বে ৫০/৬০টি মোটরসাইকেলে এক/দেড়শ বহিরাগত সন্ত্রাসী ওই বিলে মাছ ছাড়তে যায়। স্থানীয়রা বিষয়টি জানতে পেরে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে একত্রিত হয়ে তাদেরকে প্রতিরোধের চেষ্টা করে। একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে জুল হোসেনের ছেলে মজনু পিস্তল বের করে গ্রামবাসীকে গুলি করতে উদ্যত হয়। আহম্মদ আলী পেছন থেকে মজনুর হাতে লাঠি দিয়ে আঘাত করলে মজনুর পিস্তলের একটি ম্যাগজিন ছিটকে পড়ে।

গ্রামবাসীর ধাওয়ায় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে গ্রামবাসী গুলি ও ম্যাগজিন হেফাজতে নেয়। এ সময় উত্তেজিত গ্রামবাসী জুল হোসেনের বাড়িতে আক্রমণ করতে উদ্যত হয়। খবর পেয়ে দশপাকিয়া ফাঁড়ির আইসি এসআই আব্দুল জলিলের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সন্ত্রাসীদের ফেলে যাওয়া গুলিভর্তি ম্যাগজিন ও একটি নম্বরবিহীন পালসার মোটরসাইকেল নিজেদের হেফাজতে নেয় পুলিশ।

এ বিষয়ে পাশাপোল ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অবাইদুল ইসলাম সবুজ বলেন, বিলের জমি নিয়ে মামলা চলছে। মামলা শেষ না পর্যন্ত উভয় পক্ষকে শান্ত থাকতে বলা হয়েছিল। গত সোমবার জুল হোসেন হঠাৎই প্রশাসনকে না জানিয়ে নিজ ইচ্ছায় বিলে মাছ ছাড়তে গেলে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী এনামুল হক বলেন, সে সময় কি হয়েছিল ফাইল না দেখে কিছু বলতে পারছি না।

তবে সহকারী কমিশনার (ভুমি) নারায়ণ চন্দ্র পাল বলেন, বিলটি তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম ও আমি নিজে গিয়ে অবমুক্ত ঘোষণা করি।

চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব বলেন, গুলিভর্তি ম্যাগজিন ও মোটরসাইকেল উদ্ধারের ঘটনায় ৬ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৩০/৩৫ জনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

অভিযুক্ত জুল হোসেন বলেন, আমি মাছ ছাড়তে যায়নি। সলুয়ার কেউ আমার ভেঁড়িতে মাছ ছাড়তে গেছে শুনে আমি ও আমার ছেলেরা সেখানে দেখতে গিয়েছিলাম। 

-জেডআর/এমএ


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft