For English Version
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
Advance Search
হোম সারাদেশ

চাঁদাবাজি মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান সুজন কারাগারে

Published : Wednesday, 30 September, 2020 at 9:54 PM Count : 65
অবজারভার সংবাদদাতা

সাভারে চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেফতারকৃত বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন ও তার ভাই মিরাজকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকা থেকে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। গতকাল বুধবার দুপুরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হলে তাদের আইনজীবি জামিনের জন্য আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 
 
থানা পুলিশ জানায়, সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকায় সাড়ে ৯ শতাংশ জমিতে বাড়ি নির্মাণ করার সময় পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে কাজ বন্ধ করে দেয় বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন (৪৫), তার ভাই মিরাজ (৩৫), মামুন (৪০), শামিম (৪৫), কবির (৪৫), আরিফুল (৩৫) মোস্তফা (৩০)। তাদের দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দিলে ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ পানণাশের হুমকি প্রদান করে তারা। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ সেপ্টেম্বর সাভার উপজেলা পরিষদ ত্বরে উপরোক্ত ব্যক্তিবর্গসহ অজ্ঞানামা ৪/৫ জন ওই বাড়ির মালিককে আটকে চাঁদার দাবিতে মারধর করে। পরে বাধ্য হয়ে তিনি তার ফার্মের এ্যাকাউন্টেনের মাধ্যমে এক লাখ টাকা আনাইয়া চেয়াম্যান সুজনের হাতে দিয়ে ছাড়া পান। এসময় চেয়ারম্যান ও তার লোকজন বাকী টাকা দিলে ওই ব্যক্তিকে গুলি করিয়া মেরে ফেলার হুমকি দিলে পরেন দিন বিরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যানসহ সাতজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির চাঁদাবাজি মামলা (নং-৫৬) দায়ের করেন এটিএম আশরাফুল ইসলাম নামের ভুক্তভোগী। 

অভিযোগকারী রাজধানীর পল্টন থানার শান্তিনগর এলাকার বাসিন্দা। এঘটনায় রাতেই অভিযান চালিয়ে উইপি চেয়ারম্যান সুজন ও তার ভাই মিরাজকে গ্রেফতার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। 





ভুক্তভোগী এটিএম আশরাফুল ইসলাম বলেন, বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো নাইরাদি এলাকায় সাড়ে ৯ শতাংশ জমি ক্রয়ে করে বাড়ি নির্মাণ কাজ করছিলেন তিনি। কিন্তু দীর্ঘ দিন ধরেই বিরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন বাড়ি নির্মাণ কাজে ৫ লাখ টাকা চাঁদার জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিলেন। বেশ কয়েকবার বাড়ির কাজ বন্ধ করেও দেয়া হয়।
 
তিনি আরো বলেন, এরই জেরে গত ২৮ সেপ্টেম্বর সাভার উপজেলা কমপ্লেক্সে প্রধানমন্ত্রীর জন্ম বার্ষিকী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন তিনি। পরে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে চেয়ারম্যান সুজনের লোক মামুন ও মোস্তফাসহ ৪-৫জন তার পথরোধ করে। এরপর তাকে জোরপূর্বক উপজেলা কমপ্লেক্সের অডিটোরিয়ামের ভিতর যুব উন্নয়ন অফিসের সামনে নিয়ে যায়। পরে চেয়ারম্যান সুজন গাড়ি থেকে নেমে চাঁদার টাকার জন্য তাকে গালিগালাজ করতে থাকেন। 

এসময় চেয়ারম্যান সুজন সহ তার সঙ্গীয়রা তাকে মারধর চেয়্যারম্যানের ব্যক্তিগত জিপ গাড়িতে বসিয়ে রাখে। এমনকি চাঁদার টাকা না দিলে তাকে গুলি করে ফেলার হুমকি দেয়া হয়। পরে তার ফার্মের ম্যানেজার লিমন মিয়ার মাধ্যমে ১ লাখ টাকা এনে চেয়ারম্যানের হাতে দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এসময় চাঁদার বাকী ৪ লাখ টাকা না দিলে ও এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিলে আবারো তাকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি দিয়ে চলে যায় তারা। পরে এঘটনায় মঙ্গলবার তিনি সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, চাঁদাবাজির মামলায় বিরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন ও তার ভাই মিরাজকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হলে তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়। এঘটনায় বাকী আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft