For English Version
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
Advance Search
হোম সারাদেশ

'বীরঙ্গণা' হতে চাওয়া সেই আ'লীগ নেত্রীকে বহিস্কার

Published : Wednesday, 23 September, 2020 at 11:59 AM Count : 335

বয়স, জন্ম নিবন্ধন, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ জালিয়াতি করে 'বীরঙ্গণা' হওয়ার জন্য আবেদন করায় জয়পুরহাটের সেই আ'লীগ নেত্রীকে বহিস্কার করা হয়েছে।

জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেবেকা সুলতানা ও সাধারণ সম্পাদিকা মাহফুজা মন্ডল রিনা স্বাক্ষরিত গত ১৮ সেপ্টেম্বরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিটি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের হাতে আসে।

বহিস্কৃত আসমা বিবি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা ছিলেন। তিনি বর্তমানে জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তাঁর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ ও দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

বহিস্কার পত্রে দেখা যায়, বয়স, জন্ম নিবন্ধন, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের দেওয়া সনদ জালিয়াতির মাধ্যমে বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার জন্য জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলে আবেদন করেন আসমা বিবি। জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করা প্রকৃত বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধাদের হেয় প্রতিপন্ন করার ঘৃন্য অপচেষ্টা সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিযোগ আনা হয়েছে আসমা বিবির বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনায় সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা পদসহ সংগঠনের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে আসমাকে স্থায়ী ভাবে বহিস্কার করা হলো। আসমা বিবি বর্তমানে জয়পুরহাট জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

জয়পুরহাট সদর উপজেলার দোগাছী ইউনিয়নের উত্তর জয়পুর গ্রামের মৃত ইসমাইল ফকিরের কন্যা আছমা বিবির (৫৮) জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর নং ৫৫৩৬৪২১২৯৯ তে জন্ম তারিখ রয়েছে ১৯৬২ সালের ২০ ডিসেম্বর। সে অনুযায়ী ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বয়স ছিল ৮ বছর ৩ মাস ৬ দিন। 

কিন্তু ভূয়া জন্ম সনদ তৈরি করে ১২ বছর বয়স বাড়িয়ে জন্ম নিবন্ধনে জন্ম তারিখ করে নিয়েছেন ১৯৫০ সালের ২০ ডিসেম্বর। অর্থাৎ মুক্তিযুদ্ধের সময় ২০ বছরের যুবতী থাকায় তিনি পাক সেনাদের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছিলেন বলে দাবি করেন। 

এদিকে জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকা প্রকৃত জন্ম তারিখ ১৯৬২ সালের ২০ ডিসেম্বর সংশোধন করে ভূয়া জন্ম সনদে দেখানো জন্ম তারিখ ১৯৫০ সালের ২০ ডিসেম্বর করার জন্য ৩ বার আবেদন করলেও নির্বাচন কমিশন তা বাতিল করেছে। তা সত্বেও নিজেকে বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটভুক্ত করার জন্য আছমা বিবি ২০১৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) মহাপরিচালক বরাবর আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে জামুকা’র সহকারী পরিচালক আব্দুল খালেক চলতি বছরের ০২ জানুয়ারী বিশেষ কমিটি কর্তৃক যাচাই বাছাইয়ের জন্য জয়পুরহাট সদরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি চিঠি ইস্যু করেন। 

চিঠির প্রেক্ষিতে সদর উপজেলায় কর্মরত ৫ সদস্যের সরকারি নারী কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শাহনাজ সিগমা তদন্ত কাজ সম্পন্ন করে গত ২৪ জুন প্রতিবেদন জমা দেন। যেখানে তিনি আছমা বিবিকে বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটভূক্ত করার জন্য সুপারিশ করেন।

স্বাধীনতার প্রায় ৫০ বছর পর বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার আবেদন করেছেন আছমা বিবি, এ খবর ছড়িয়ে পড়লে  জেলা আওয়ামী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগসহ অংগ সংগঠনের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

মুক্তিযুদ্ধের সময় যার বয়স ছিল মাত্র ৮ বছর ৩ মাস। জাতীয় পরিচয়পত্রেও সে অনুযায়ী তার জন্ম তারিখ ১৯৬২ সালের ২০ ডিসেম্বর। অথচ মুক্তিযুদ্ধের সময় নিজেকে ২০ বছরের যুবতী দাবি করে বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধার আবেদন করেছেন জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণসহ বিষয়টি যথাযথ তদন্ত করার জন্য জেলা প্রশাসকের নিকট আবেদন করেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজম আলী।

তিনি বলেন, আছমার নামে এই বীরঙ্গণা স্বীকৃতি এলে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি থাকবে না। সরকারি ভাবে গঠিত ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি সঠিক ভাবে যাচাই বাছাই না করেই বীরঙ্গণা হিসেবে গেজেটভূক্ত করার জন্য প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন।

জমা দেওয়া কাগজপত্রের বিষয়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বীরঙ্গণা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার জন্য আছমা বিবি স্থানীয় দোগাছি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পিতার পরিবর্তে স্বামীর নাম দিয়ে ১৯৫০ সালের ২০ ডিসেম্বর উল্লেখ করে জন্ম নিবন্ধন করিয়ে নিয়েছেন। জন্ম নিবন্ধন কখনই স্বামীর নামে হয়না। ১৯৬৩ সালে অষ্টম শ্রেণি পাশ করেছেন মর্মে স্থানীয় উত্তরজয়পুর দাখিল মাদ্রাসা থেকে প্রত্যয়নপত্র জমা দিলেও ওই মাদ্রাসায় গিয়ে কোন রেকর্ড পত্র পাওয়া যায়নি।

ভূয়া জন্ম নিবন্ধনের ভিত্তিতে জাতীয় পরিচয়পত্রে বয়স সংশোধনের আবেদন করলেও তথ্যে গরমিল থাকায় নির্বাচন কমিশন তা বাতিল করে ১৯৬২ সালের ২০ ডিসেম্বর জন্ম তারিখই বহাল রাখে। অভিযোগের কারণে বিষয়টি বর্তমানে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আটকে রয়েছে।





সংগঠন থেকে বহিস্কারের বিষয়ে আসমা বিবি বলেন, আমি এখন কোন চিঠি পাইনি। তবে আমাকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হলে তা অন্যায় ভাবে করা হবে বলে দাবী করেন তিনি।   

-এসআইএস/এমএ



« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft