For English Version
শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০
হোম স্বাস্থ্য

করোনা নেগেটিভ, তবু চলে গেলেন শিক্ষাবিদ প্রফেসর আব্দুল মান্নান

Published : Friday, 10 July, 2020 at 10:36 PM Count : 70

বগুড়ার শিবগঞ্জ এম এইচ ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত সাবেক অধ্যক্ষ ,বৃক্ষপ্রেমী বগুড়ার মহাস্থানে সবুজ নার্সরীর সত্ত্বাধিকারী ও  বগুড়ার প্রত্নসামগ্রী সংগ্রাহক,  প্রফেসর আব্দুল মান্নান (৬৪) ইন্তেকাল করেছেন।  (ইন্নালিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন)।  কোভিড-১৯ ভাইরাসের সঙ্গে দীর্ঘদিন যুদ্ধের পর করোনা মুক্ত হয়েও বাঁচতে পারলেন না  আব্দুল মান্নান।  

শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে বগুড়ায় টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ্ কমিউনিটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।





ওই হাসপাতালের সহকারি নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রহিম রুবেল জানান, আব্দুল মান্নান করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ১৩ জুন তাদের হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৮ জুলাই তিনি করোনা নেগেটিভ হন। তবে ডায়াবেটিস এবং হার্টে নানা সমস্যা থাকায় করোনার সংক্রমণে তিনি কাহিল হয়ে পড়েছিলেন।  
টিএমএসএসের উপ-নির্বাহী পরিচালক ডা. মতিউর রহমান জানান, আগে থেকেই শারীরিক নানা জটিলতা থাকায় আব্দুল মান্নানকে হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) নেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে আইসিইউতেই তার মৃত্যু হয়। তিনি বলেন, মাঝে আব্দুল মান্নানের শারিরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে আবার তা অবণতির দিকে যায়। এমনকি করোনা নেগেটিভ হওয়ার পরও তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল না। 

বগুড়ার ঐতিহাসিক মহাস্থানগড় সংলগ্ন গোকুল উত্তরপাড়ার বাসিন্দা আব্দুল মান্নান প্রত্নসামগ্রী সংগ্রাহক ছিলেন। দীর্ঘ ৪২ বছর ধরে তাঁর সংগ্রহ করা প্রত্নসামগ্রীগুলো তিনি ২০১৭ সালে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করেন। এজন্য সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় তাকে সম্মাননাও প্রদান করে। বগুড়ার মহাস্থানগড় এবং সংলগ্ন এলাকার ইতিহাস নিয়ে তার লেখা ‘ইতিকথা পৌরবর্ধন’ বইটি পাঠক মহলে ব্যাপক সাড়া পায়। আব্দুল মান্নান বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজ ছাত্র সংসদের সাহিত্য ও নাট্য সম্পাদক ছিলেন।

প্রায় চার দশক আগে মহাস্থান বন্দরের কাছে তিনি ‘সবুজ নার্সারী’ নামে চারা গাছ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। প্রায় ৩০ একর জায়গা নিয়ে গড়ে তোলা ওই নার্সারীতে দেশীয় ফলদ ,বনজ ও ঔষুধী বৃক্ষের পাশাপাশি বিদেশী গাছের চারা উৎপাদন করতেন। কৃষি ও সামাজিক বনায়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য তিনি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে সম্মাননা পান। এক ছেলে ও দুই কন্যা সন্তানের জনক প্রকৃতিপ্রেমী আব্দুল মান্নান বগুড়ার শিবগঞ্জ এম এইচ ডিগ্রী কলেজে অধ্যাপনা করতেন। পদোন্নতি পেয়ে তিনি ওই কলেজের অধ্যক্ষ হন। তবে প্রায় ৪ বছর আগে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। এরপর নিজের প্রতিষ্ঠিত নার্সারীতেই দিনের বেশিরভাগ সময় অবস্থান করতেন।

এজেড/এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft