For English Version
শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০
হোম সারাদেশ

রাজশাহীতেও গণপিটুনি খেয়েছিলেন এএসপি সুমিত

Published : Friday, 3 July, 2020 at 7:00 PM Count : 235

ফরিদপুরে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় পরিবেশ অধিদফতরের একজন শীর্ষ কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করার অপরাধে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন নৌ-পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) সুমিত চৌধুরী। পুলিশের এই কর্মকর্তা রাজশাহীতে মাতলামির কারণে গণপিটুনি খেয়েছিলেন। তখন তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়।

এরপর তাকে নৌ-পুলিশে দেয়া হয়। কিন্তু দু’বছর পর ঠিক একই কারণে সাময়িক বরখাস্ত হলেন তিনি। গত বুধবার (১ জুলাই) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ শৃঙ্খলা-২ শাখার সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে তাকে বরখাস্তের নির্দেশ দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, জনাব সুমিত চৌধুরী (বিপি-৭৪০৬১১৯৭৪৪) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, নৌ পুলিশ ফরিদপুর অঞ্চলকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর ১২ (১) অনুযায়ী চাকুরী হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা সমীচীন মর্মে প্রতীয়মান হওয়ায় এতদ্বারা তাকে চাকুরী হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

গত ৩০ জুন মঙ্গলবার বিকালে ফরিদপুর শহরের গোয়ালচামট ১ নম্বর সড়ক সংলগ্ন পরিবেশ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়ে যান নৌ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরী। এ সময় তিনি নেশাগ্রস্ত ছিলেন। প্রথমে তিনি হিসাবরক্ষণ হানিফ মো. উজ্জলকে গালিগালাজ করেন ও চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন।

পরে পরিদর্শক তুহিন আলম ও সদ্য যোগদানকৃত মহিলা কর্মকর্তা সহকারী পরিচালক গীতা রানী দাসকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। এ সময় তাকে বাধা দিতে উপ-পরিচালক ড. লুৎফর রহমান এগিয়ে এলে তাকেও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন সুমিত চৌধুরী। এর এক পর্যায়ে তিনি সিসিটিভি ফুটেজের আলামতসহ অফিসের অন্যান্য আসবাবপত্র ভাংচুরেরও চেষ্টা চালান। এ সময় নিজের সম্মান রক্ষার্থে ড. লুৎফর রহমান অফিস থেকে বের হয়ে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামানের কাছে অভিযোগ জানান।

পরে তার বিরুদ্ধে সরকারিভাবে অভিযোগ দায়েরের প্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বরখাস্তের এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর আগে ২০১৮ সালের জুন মাসে রাজশাহী থেকে তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে নৌ-পুলিশে দেয়া হয়। তিনি রাজশাহী জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছিলেন।

এএসপি সুমিত চৌধুরী রাজশাহীতে থাকা অবস্থায় তার বিরুদ্ধে অফিসে বসে মাদক সেবন, মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ রক্ষা ও অধীনস্থদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করাসহ আরও কয়েকটি গুরুতর অভিযোগ ছিল। ফলে ওই বছরের ২৮ মে পুলিশ সদর দফতর থেকে এএসপি সুমিত চৌধুরীকে নৌ-পুলিশে বদলির আদেশ আসে। এতে তিনি আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। রাজশাহী ছাড়ার আগে শৃঙ্খলাভঙ্গজনিত কিছু অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটান তিনি। ১ জুন তিনি মদ্যপ অবস্থায় গণপিটুনি খান। এর মধ্যে তিনি এক এসপির সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন বলেও অভিযোগ ওঠে।





সেদিন রাত সাড়ে ১২টার দিকে সুমিত চৌধুরী মদপান করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের সামনে মাতলামি করছিলেন। এ সময় কয়েকজন পথচারী ও স্থানীয় দোকানদারের সঙ্গেও খারাপ আচরণ করেন তিনি। তাই তারা সুমিত চৌধুরীকে গণপিটুনি দিতে শুরু করেন। অবশ্য তারা পুলিশের এই কর্মকর্তাকে তখন চিনতে পারেননি। গভীর রাতে রাস্তার ওপর হইচইয়ের খবর পেয়ে মহানগরীর রাজপাড়া থানার ডিউটি অফিসার ব্রজ গোপাল কর্মকার একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং জনতার হাত থেকে এএসপি সুমিত চৌধুরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

রাজপাড়া থানার তখনকার দায়িত্বপ্রাপ্ত ওসি মশিউর রহমান জানান, ওই রাতে কিছু ঝামেলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। ভোররাতের দিকে বিষয়টির নিষ্পত্তি হয়।

এএসপি সুমিত কুমার চৌধুরীর বদলির ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল্লাহ বলেন, গত ২৮ মে পুলিশ সদর দফতর থেকে এএসপি সুমিত চৌধুরীকে নৌ-পুলিশে বদলির আদেশ আসে। কিন্তু এর মধ্যেই গত কয়েক দিনে শৃঙ্খলাভঙ্গজনিত কিছু অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটান তিনি। ফলে শনিবারই (২ জুন) তাকে রাজশাহী জেলা থেকে স্ট্যান্ডরিলিজ করা হয়।

আরএইচএফ/এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft