For English Version
সোমবার, ০১ জুন, ২০২০
হোম সারাদেশ

‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ ইয়াবা পাচারকারী নিহত

Published : Saturday, 28 March, 2020 at 11:30 PM Count : 103

কক্সবাজারের টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা ছুরি খাল এলাকায় বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে তিন মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১ লক্ষ ৮০ হাজার ইয়াবা, ২টি অস্ত্র, ৩ রাউন্ড কার্তুজ,একটি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে।

বিজিবি সূত্রে জানা যায়, ২৭ মার্চ রাতে মাদক পাচারের ঘাঁটি হিসাবে খ্যাত হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা নাফনদী সংলগ্ন ছুরিখাল এলাকা দিয়ে মাদকের একটি বড় চালান বাংলাদেশ সীমান্তে প্রবেশ করার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গভীর রাত ১২টার দিকে সীমান্ত প্রহরী বিজিবির একটি দল উক্ত এলাকায় অবস্থান নিলে অন্ধকারের মধ্যে ৪/৫ জন লোক একটি নৌকা নিয়ে নাফনদী পার হয়ে ছুরিখাল এলাকায় প্রবেশ করতে দেখে বিজিবি তাদের চ্যালেঞ্জ করে দাঁড়ানোর সংকেত দেয়। মাদক কারবারীরা বিজিবির উপস্থিতি বুঝতে পেরে নৌকা থেকে লাফ দিয়ে দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে বিজিবি তাদের ধাওয়া করলে তারা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ী গুলিবর্ষণ করে।  এতে বিজিবি তিন সদস্য আহত হয়।   

বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে এবং সরকারী সম্পদ রক্ষা করার জন্য পাল্টা গুলি চালালে উভয় পক্ষের মধ্যে প্রায় ৫/৬ মিনিট গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে।  পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার পর ঘটনাস্থল থেকে বিজিবি গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাতনামা তিন যুবককে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন।  এরপর কক্সবাজার সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত ডাক্তার তাদের তিন জনকে মৃত ঘোষণা করে।

এদিকে বিজিবি সদস্যরা ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ৫ কোটি ৪০ লাখ টাকা মূল্যের ১ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবা, দেশীয় তৈরী ২টি বন্দুক, ৩ রাউন্ড কার্তুজ, ১টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মো. ফয়সল হাসান খাঁন (পিএসসি) জানান, বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে নিহত হওয়া তিন ব্যাক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি।

তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে যখন সারাদেশের মানুষ আতঙ্কের মধ্যে থাকলেও মাদক পাচারে জড়িত অপরাধীরা নির্ভয়ে তাদের অপকর্ম অব্যাহত রাখার জন্য অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।  তবে তাদের সেই অপচেষ্টা প্রতিরোধ ও মাদক কারবারীদের নির্মুল করার জন্য সীমান্ত প্রহরী বিজিবি সদস্যরা সদা প্রস্তুত রয়েছে।





উল্লেখ্য যে, রোহিঙ্গা অধ্যোষিত লেদা-মোচনী এলাকায় স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের সমন্বয়ে একটি ইয়াবা কারবারি সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে ছুরি খাল পয়েন্ট দিয়ে ইয়াবা পাচার করে আসছে। বিগত দিনে এই পয়েন্ট দিয়ে ইয়াবা পাচারকালে বেশ কয়েকটি ইয়াবার চালান আত্মসাতের ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করলে প্রশাসন নড়েচড়ে বসে এবং উপরোক্ত ইয়াবা কারবারি সিন্ডিকেট ও আত্মসাৎকারীদের কয়েকজন প্রশাসনে সফল অভিযানে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়। সিন্ডিকেটের বাকী সদস্যরা আত্মগোপনে চলে যায়।

কিন্তু সামপ্রতিক সময়ে দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস আতঙ্কে প্রশাসনের দৃষ্টি যখন লকডাউন ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিতকরণ কাজে নিয়োজিত ঠিক সেই সুযোগে উক্ত সিন্ডিকেটের পলাতক সদস্যরা সগৌরবে এলাকায় ফিরে পুনরায় ইয়াবা পাচারে লিপ্ত হয়।

এ সিন্ডিকেটের অন্যতম প্রধান ডাকাত নুরুল আমিন র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হলে বর্তমানে তার ডানহাত হিসেবে পরিচিত পশ্চিম লেদার আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে রোহিঙ্গা ডাকাত ও স্থানীয় মাদক কারবারিদের নিয়ে গঠিত ইয়াবা সিন্ডিকেটের সীমান্তে ইয়াবা পাচার বলতে গেলে ওপেন সিক্রেট। এ সিন্ডিকেটের অপরাপর সদস্যদের মধ্যে রোহিঙ্গা ডাকাত পুতিয়া, পশ্চিম লেদার বেলা কাদিরের ছেলে নুরুল ইসলাম, আব্দুশ শুক্কর প্রকাশ শুক্কুনুর পুত্র ধইল্লা অন্যতম বলে জানান স্থানীয়রা এবং সাঁড়াশি অভিযানের মাধ্যমে এসব ইয়াবা কারবারিদের মূলোৎপাটন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এলাকায় স্বস্তি ফিরিয়ে আনবেন বলে আশাবাদী এলাকার সচেতন মহল।

এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft