For English Version
শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
হোম জাতীয়

করোনা ভাইরাস : মৈত্রী এক্সপ্রেসের যাত্রীরাও স্ক্রিনিংয়ের আওতায়

Published : Wednesday, 12 February, 2020 at 4:32 PM Count : 81

দেশে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে চলাচলরত মৈত্রী এক্সপ্রেসের যাত্রীদেরও স্ক্রিনিংয়ের আওতায় আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রোগতত্ত্ব রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)'র পরিচালক অধ্যপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। 

বুধবার রাজধানীর মহাখালীতে আইইডিসিআরের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

আইইডিসিআর'র পরিচালক বলেন, 'করোনা ভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যুর মিছিল অব্যাহত থাকায় বিশ্বের অন্য দেশগুলোর মতো বাংলাদেশেও সতকর্তা বাড়ানো হচ্ছে। কয়েকদিন আগে থেকেই সব দেশের প্লেনের যাত্রীদের স্ক্রিনিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তবে সিঙ্গাপুরে ২ জন বাংলাদেশি আক্রান্ত হওয়ায় সিঙ্গাপুর থেকে আসা যাত্রীদের চীন থেকে আসা যাত্রীদের মতোই গুরুত্ব দিয়ে স্ক্রিনিং শুরু হয়েছে।'

তিনি বলেন, 'করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কারের বিষয়ে নানা গুঞ্জন থাকলেও একটি সম্পূর্ণ প্রতিষেধক আবিষ্কার হতে অন্তত ১৮ মাস অপেক্ষা করতে হবে। আর এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ৫৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, এদের কারো শরীরেই করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়নি।'





আইইডিসিআর'র পরিচালক বলেন, 'সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ১১ জন ও চীনের উহান থেকে ৩০১ জনকে আশকোনার হজ ক্যাম্পে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। সিঙ্গাপুরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশির চিকিৎসা চলছে দেশটির একটি স্থানীয় হাসপাতালে। চীন ফেরতদের মধ্যে এ পর্যন্ত সন্দেহজনক মোট ৫৮টি নমুনা ও গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। এই মুহূর্তে একজন রোগী আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি থাকলেও তার শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ বা উপসর্গ নেই।'

তিনি বলেন, 'বিমানবন্দরসহ দেশের সব প্রবেশ পথে গত ২৪ ঘন্টায় ১৪ হাজার ২৯৪ জনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। গত ২১ জানুয়ারি থেকে এই সংখ্যা দাড়িয়েছে ১ লাখ ৪ হাজার ৮৮১ জন। ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্ক্রিনিং করা যাত্রী ৪১ হাজার ৩৯৯ জন, দুটি সমুদ্র বন্দরে (চট্টগ্রাম ও খুলনার মোংলা) স্ক্রিনিং করা হয়েছে ১ হাজার ৪০৯ জন। এছাড়া অন্যান্য স্থল বন্দরে মোট স্ক্রিনিং করা হয়েছে ৬২ হাজার ৭৩ জনকে।’

এ সময় প্রতিষ্ঠানের প্রিন্সিপাল সায়েন্টিফিক অফিসার ড. এ এস এম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন। 

-এমএ


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft