For English Version
শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
হোম সারাদেশ

চুরির অপবাদে গৃহবধূকে উলঙ্গ করে নির্যাতন

Published : Wednesday, 22 January, 2020 at 6:41 PM Count : 361
অবজারভার সংবাদদাতা

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের নোয়াগ্রামে আসমা বেগম (৩২) নামের এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় উলঙ্গ করে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নির্যাতনের সময় ৯৯৯ ফোন দিলে পুলিশ ওই গৃহবধুকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন। বর্তমানে এই গৃহবধু গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে।

এই ঘটনায় গত সোমবার থানায় মামলা হওয়ার দুদিন পরও আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরছে। পুলিশের পক্ষ থেকে ঘটনাটির মিমাংসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে আসামিদের ধরছে না বলে অভিযোগ করেছেন বাদীপক্ষ। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মেহেদী হাসান বুধবার দুপুরে ঘটনাটি ‘নির্মম ও মধ্যযুগীয় নির্যাতন’ উল্লেখ করে দ্রুত অপরাধীদের গ্রেপ্তার করা হবে বলে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন।

বাদীপক্ষের মামলার এজাহার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নোয়াগ্রামের বাসিন্দা নজরুল ইসলামের স্ত্রী আসমা বেগমকে গত রবিবার বিকেলে পাশের শরীফ ডাক্তারের বাড়িতে ডেকে নেয়া হয়। সেইখানে শরীফ ডাক্তারের স্ত্রী সীমা আক্তার ও তার ভাই শাহেদ সরকার গৃহবধূ আসমার ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। এক পর্যায়ে গৃহবধূকে উলঙ্গ করে লোহার রড দিয়ে ও বোতল দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে। নির্যাতনের ফলে সে সময় আসমা একাধিকবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন পরে নির্যাতনকারীরা পানি ঢেলে আসমাকে একাধিকবার জ্ঞান ফিরিয়ে এনে পুনরায় নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে আসমার চিৎকারে তার স্বামী নজরুল ইসলাম তার স্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য ৯৯৯ ফোন করেন। ফোন পেয়ে নবীনগর থানার এএসআই মো. আশরাফ উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আসমাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন।

নির্যাতিতা গৃহবধুর স্বামী নজরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, শরীফ ডাক্তার ও তার ভাইদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। এছাড়া শরীফ ডাক্তারের ভাই সাহেদ সরকার তার স্ত্রীকে প্রায়ই নানা প্রকার কু-প্রস্তাব প্রদান করলে এতে আসমা রাজি না হওয়ায় পরিকল্পিতভাবে বাড়িতে ডেকে নিয়ে চুরির অপবাদ দিয়ে এই বর্বর ও অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের সাথে একাধিকবার চেষ্টা করেও কথা বলা যায়নি। তবে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আসমাকে উদ্ধার করা পুলিশের এএসআই আশরাফ উদ্দিন বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় গৃহবধূকে উদ্ধার করি। তবে আসমা পাঁচলাখ টাকা চুরি করায় শরীফ ডাক্তারের বাড়ির লোকজন তাকে মারধর করেছেন বলে নির্যাতনকারীরা আমার কাছে অভিযোগ করেছেন। ঘটনাস্থল থেকে শরীফ ডাক্তার গৃহবধূ আসমার কাছ থেকে চুরি হওয়া উদ্ধারকৃত চুরির তিনলাখ টাকা আমাকে এনে দিলে, আমি সেই টাকা জব্দ করে থানায় নিয়ে আসি।





এইদিকে হাসপাতালের বেডে শুয়ে কাতড়ানো অবস্থায় নির্যাতিতা গৃহবধু আসমা বেগম বুধবার দুপুরে বলেন, আমি শরীফ ডাক্তারের ভাইয়ের কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অনেকদিন ধরেই আমার ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন। ঘটনার দিন তারা আমাকে কৌশলে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে আমার বিরুদ্ধে চুরির অপবাদ দেয়। পরে লোহার রড, পেপসির বোতল ও রুটি বানানোর বেলুন দিয়ে আমাকে বেধড়ক নির্যাতন করে।

মামলাটির তদন্তে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীনগর থানার সেকেন্ড অফিসার মো. জসিম উদ্দিন বলেন, শুনেছি, বিষয়টির আপস মীমাংসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তাই এই বিষয়ে কোন কথা বলতে পারছিনা।

তবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মেহেদী হাসান বুধবার দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনাটি শুধু নির্মমই নয়, একেবারেই অমানবিক।  চুরির অপবাদ হলেও কোন সচেতন মানুষ এমন বর্বর নির্যাতন চালাতে পারে না। এই ঘটনায়  সোমবার রাতেই মামলা নেয়া হয়েছে। কোন মীমাংসা নয়, শিগগিরই আমারা অপরাধীদের গ্রেপ্তার করবো।

ডিএইচ/এসআর


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft