For English Version
শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
হোম সারাদেশ

প্লাস্টিক ও বর্জ্যমুক্ত পরিচ্ছন্ন পদ্মা নদীর দাবি তরুণদের

Published : Saturday, 18 January, 2020 at 6:27 PM Count : 165

‘প্লাস্টিক ও বর্জ্য মুক্ত পরিচ্ছন্ন পদ্মাপাড়, জীবন্ত নদী তারুণ্যের অঙ্গীকার’ এই শ্লোগানে দু’দিনব্যাপি ‘জীবন্ত সত্তা পদ্মা নদী রক্ষার ডাক বিষয়ক প্রচারাভিযান করেছে রাজশাহীর তরুণরা। একই সাথে পদ্মাপাড়ে পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেন তারা।

‘শহর আমার, দায়িত্ব আমার’ চলমান গণসচেতনতা প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ রিসোর্স সেন্টার ফর ইন্ডিজিনাস নলেজ (বারসিক) এবং রাজশাহীর তরুণ সংগঠন ইয়ুথ অ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ (ইয়্যাস) এর আয়োজনে পদ্মা পাড়ে দর্শনার্থীদের জনগণকে সচেতন এবং সতর্ক হবার লক্ষে দুই দিনব্যাপি (১৬-১৭ জানুয়ারি ২০২০) মহানগরীর পদ্মা নদীর পাড়, পাঠানপাড়াস্থ লালনশাহ পার্ক এবং এর আশপাশে প্রচারাভিযানের
আয়োজন করে।

প্রচারাভিযানে রাজশাহীর শতাধিক তরুণ পদ্মা পাড়ের দর্শনার্থীদের প্লাস্টিক ও বর্জ্যমুক্ত পরিচ্ছন্ন পদ্মাপাড় সৃষ্টিতে মানুষকে সচেতন করেন। একই সাথে পদ্মাপাড়ে তরুণরা পরিচ্ছন্নতার অভিযান করেন। তরুণরা মাইকে সকল দর্শনার্থীকে পদ্মা পাড়ে প্লাস্টিক এবং অপচনশীল বর্জ্য না ফেলতে অনুরোধ করেন। 





তরুণরা নদী পাড়ে অস্থায়ীভাবে ডাস্টবিন স্থাপন করেন। প্রচারাভিযানের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন, বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম, ইয়্যাসের সভাপতি শামীউল আলীম শাওন, সাধারণ সম্পাদিক নাজমুল ইসলাম আকাশ, কোষাধ্যক্ষ মো. আতিকুর রহমান আতিক, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সুবাস কুমারসহ বিভিন্ন সংগঠনের তরুণ সদস্য।

ইয়্যাসের সভাপতি শামীউল আলীম শাওন বলেন, পদ্মাপাড়ে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থী আসে কিন্তু তাদের বর্জ্য ফেলার জন্য কোনো ডাস্টবিন নেই। তিনি দ্রুততার সঙ্গে পদ্মা পাড়ে ডাস্টবিন স্থাপনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, আনন্দ আর বিনোদন করতে প্রতিদিন হাজার হাজার লোক আসে পদ্মা পাড়ে। নদীর মুক্ত বাতাস আর স্নিগ্ধতা নিয়ে ফিরে যায় কিন্তু অনেকে নদীর বুকে অপচনশীল বর্জ্য যেমন প্লাস্টিক, পলিথিন, চিপসের প্যাকেট, কোমল পানীয় বোতল, পিকনিক করতে এসে অপচনশীল ওয়ানটাইম গ্লাস প্লেটসহ নানা ধরনের বর্জ্য ফেলে চলে যায়। দূষণ বাড়ে পদ্মা নদীর। এভাবে নদীর তলানিতে এবং পানি বিষাক্ত বর্জ্যরে কারণে নদী যেমন দূষিত হচ্ছে তেমনি নদীতে বিভিন্ন ধরনের জলজ উদ্ভিদ এবং প্রণীর অপরিমেয় ক্ষতি হচ্ছে।

আরএইচএফ/এইচএস


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft