For English Version
বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০
হোম অর্থ ও বাণিজ্য

শিল্পে ব্যবহৃত কাঁচামাল আমদানিতে এলসির মেয়াদ দ্বিগুণ করার দাবি

Published : Thursday, 26 December, 2019 at 10:18 AM Count : 80
অবজারভার প্রতিবেদক

শিল্পে ব্যবহৃত কাঁচামাল আমদানিতে এলসির মেয়াদ বাড়িয়ে দ্বিগুণ করতে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের প্রতি আবেদন করেছেন চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

বর্তমানে এ মেয়াদ ১৮০ দিন। বৈদেশিক মুদ্রার বহিঃপ্রবাহ কমাতে এবং আর্থিক খাতে তারল্য বাড়াতে এ মেয়াদ বাড়িয়ে ৩৬০ দিন করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন মাহবুবুল আলম। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে ব্যাংকের গভর্নরকে একটি চিঠি দিয়েছে চট্টগ্রাম চেম্বার।

ওই চিঠিতে লেখা হয়েছে, বিদেশ থেকে বড় জাহাজে আমদানি করা ৫০-৬০ হাজার টন কাঁচামাল চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে লাইটারেজ জাহাজের মাধ্যমে খালাস করে নদীপথে বিভিন্ন বড় কারখানা, নদীবন্দর, নৌঘাটে নিয়ে যেতে ১০০ দিনের বেশি দিন সময় লেগে যায়।

তবে অকেসময় জাহাজজট, লাইটার জাহাজের স্বল্পতা, বৈরি আবহাওয়া, বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের কর্মবিরতিসহ নানা কারণে পণ্য খালাসে এ সময় ১২০ দিনের বেশি পেরিয়ে যায়। একইভাবে ডাল, গম ইত্যাদি ভোগ্যপণ্য আমদানি, খালাস ও সারা দেশে পরিবহনে অনুরূপ সময় ব্যয় হয়।

এরপর খালাস হওয়া কাঁচামাল গুদামজাতকরণ, কারখানায় নিয়ে উৎপাদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে আরও ৬০-৮০ দিন ব্যয় হয়। সেই পণ্য বাজারে শতভাগ বাকিতে বিক্রি করতে হয়। এ বাকি অর্থ আদায় করতে আরো ১০০-১২০ দিন সময় লেগে যায়।

সব মিলিয়ে আমদানি করা কাঁচামালের ক্যাশ কনভারশন সাইকেল পূর্ণ হতে ২৪০-৩৪০ দিন লাগে।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত ডলারের রেট ৮৪ দশমিক ৮৫ টাকা হলেও ব্যাংকগুলো সে নিয়ম না মেনে ৮৬ দশমিক ৫০ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করে থাকে। যে কারণে আমদানি ব্যয় ২-৩ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়।

সার্বিক বিবেচনায় শিল্পে ব্যবহৃত কাঁচামাল আমদানিতে ইউপাস এলসির মেয়াদ ১৮০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৩৬০ দিন করলে বৈদেশিক মুদ্রার বহিঃপ্রবাহ কমবে এবং আর্থিক খাতে তারল্য বাড়বে।





এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত রেটে ডলার বিনিময়ের জন্য বেসরকারি ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা প্রদানের অনুরোধ করেন চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

একইসঙ্গে ভোগ্যপণ্য যেমন-ডাল, গম ইত্যাদি আমদানিতেও এলসির মেয়াদ অনুরূপ বাড়ানোর জন্য আবেদন জানান তিনি।

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতির চিঠির সঙ্গে সহমত পোষন করে এফবিসিসিআই’র সাবেক পরিচালক আমিরুল হক বলেন, সরকার ইতিমধ্যে ব্যবসাবান্ধব বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। চট্টগ্রাম চেম্বার থেকে পাঠানো চিঠিটি জরুরিভাবে বিবেচনা করলে তারল্য সংকট কমবে এবং দেশের অর্থনীতির অবস্থা সুদৃঢ় হবে বলে মনে করি।

উল্লেখ্য, ইস্পাত শিল্পে ব্যবহৃত স্ক্যাপ, এইচআর কয়েল, শিপ আয়রন, স্পঞ্জ আয়রনসহ আরও কিছু কাঁচামালে ইউপাস এলসির মেয়াদ ৩৬০ দিন।


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft