For English Version
শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
হোম অর্থ ও বাণিজ্য

রাজশাহীর বাজারে শীতকালীন টমেটো

Published : Sunday, 15 December, 2019 at 11:03 PM Count : 159

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে শীতকালীন টমেটো উঠতে শুরু করেছে। তবে এবার ফলন কম হলেও মৌসুমের শুরুতে ভাল দাম পেয়ে খুশি কৃষকরা। উৎপাদিত টমেটো প্রতিমণ বিক্রি হচ্ছে ৮’শ থেকে ১ হাজার টাকায়।

গোদাগাড়ী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানায়, এ বছর উপজেলায় ১ হাজার ২শ হেক্টর জমিতে শীতকালীন হাইব্রিড টমেটোর চাষ হয়েছে।

কৃষকরা জানান, গত বছর টমেটো চাষ করে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় চলতি মৌসুমে জমির পরিমাণ কমিয়ে দিয়ে অল্প জমিতে টমেটো চাষ করে। টমেটো উৎপাদনের শুরুতেই তাপমাত্রার কারণে ফুল ও ফল নষ্ট হয়। এতে করে টমেটোর ফলন কমে গেছে।

উপজেলার মহিশালবাড়ীর কৃষক হাসান আলী বলেন, স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করার পর চাকরি না পেয়ে নিজেকে কৃষি পেশায় জড়িয়ে ফেলি। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে টমেটো চাষ করে আসছি। চলতি মৌসুমে ৩ বিঘা জমিতে টমেটো চাষ করেছি। প্রতি বিঘা টমেটো চাষে খরচ হয়েছে ১২ হাজার টাকা। গত ১ সপ্তাহের ব্যবধানে ১০ হাজার টাকার মতো টমেটো বিক্রি করেছি।

কৃষক হাসান আলী আরও বলেন, টমেটোর উৎপাদন শুরুতে কম হলেও পরে তা বাড়তে থাকে। তাই সঠিক দাম পেলে লাভবান হওয়া যাবে। উপজেলার সাগুয়ানের কৃষক আজিজুল ইসলাম ১ বিঘা জমিতে টমেটো চাষ করেছে। তার খরচ হয়েছে ১১ হাজার টাকা। এখন পর্যন্ত ২ হাজার টাকার টমেটো বিক্রি করেছে। কৃষক আজিজুল বলেন, গত বছর ৫ বিঘাতে টমেটো চাষ করে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন। এবার মাত্র ১ বিঘা জমিতে টমেটো চাষ করলেও অন্য জমিতে ধান চাষ করেন।

স্থানীয় টমেটো ব্যবসায়ী আহমদুল্লাহ্ বলেন, টমেটো উঠলেও পুরোদমে ব্যবসা জমে উঠেনি। বাইরের পাইকারি ব্যবসায়ীরা এবার কম এসেছে। এছাড়াও কৃষকদের মাঝে আতঙ্ক রয়েছে ওষুধ  (কেমিক্যাল) দিয়ে টমেটো পাকা নিয়ে।





এ ব্যবসায়ী আরও জানান, জমি থেকে কাঁচা টমটো উত্তোলন করে হরমন জাতীয় ওষুধ দিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় টমেটো পাকানো হয়। এটি গত ২০ বছর ধরে হয়ে আসছে। অথচ এবার ওষুধ দিয়ে টমেটো পাকানোর কারণে ৩ জন কৃষককে ধরে নিয়ে যায় প্রশাসন। এর পর থেকেই অধিকাংশই কৃষক টমেটো পাকানো ছেড়ে দিয়ে কাঁচা টমেটো বিক্রি করছে কম দামে।

এদিকে, উপজেলার মহিশালবাড়ী, রেলগেট, উজানপাড়া, কাদিপুর, সাহাব্দিপুর, বসন্তপুর, লালবাগ, প্রেমতলী, বিজয়নগর, হাবাসপুর, মোহরাপুর, গোগ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় কাঁচা টমেটো উত্তোলন করে বিশেষ ব্যবস্থায় ওষুধ দিয়ে টমেটো পাকানো হচ্ছে। বেশি দাম পাওয়ার জন্য অপরিপক্ক টমেটো উত্তোলন করছে কিছু কিছু কৃষক। এ সব অপরিপক্ক টমেটো পাকাতে মাত্রাতিরিক্ত হরমন জাতীয় মেডিসিন ব্যবহার করা হচ্ছে।
 
গোদাগাড়ী কৃষি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, এ অঞ্চলের মাটির উর্বরতা শক্তি ভালো। টমেটো চাষের জন্য অত্যক্ত উপযোগী। এ অঞ্চলের কৃষকের কাছে টমেটো একটি অর্থকরি ফসল। ধান, গমসহ বিভিন্ন ফসলের পাশাপাশি টমেটো চাষ করে প্রায় কৃষক।

কেমিক্যাল দিয়ে টমেটো পাকানোর বিষেয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, টমেটো পাকানোর ক্ষেত্রে ক্ষতিকর কেমিক্যাল জাতীয় কোনো কিছু ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। অপরিপক্ক টমেটো উত্তোলন করে ক্ষতিকর কেমিক্যাল দিয়ে পাকানো হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। টমেটো চাষ, উত্তোলন ও বাজারজাতের উপর স্থানীয় কৃষক ও ব্যবসায়ীদের নিয়ে কর্মশালার ব্যবস্থা করেছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর। কৃষক ও ব্যবসায়ীরা প্রশিক্ষণ নিয়ে টমেটো চাষ, উৎপাদন ও বাজারজাত করছে।

-আরএইচএফ/এমএ


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60; Online: 9513959 & 01552319639; Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft