For English Version
বুধবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২০
হোম সারাদেশ

প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত ১

Published : Sunday, 15 December, 2019 at 6:40 PM Count : 79
অবজারভার সংবাদদাতা

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে প্রতিপক্ষের বন্দুকের গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন উভয়পক্ষের আরও ৩০ জন। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।

রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কালধর গ্রামের মনু মিয়ার বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আমির উদ্দিন (৪৫) ওই গ্রামের সাইদুল্লাহ'র ছেলে।

গুলিবিদ্ধ দেলোয়ার হোসেন (৩০), রাজেল মিয়া (৩২), এলাইছ মিয়া (৫২), শহিদ মিয়া (৩৬), চন্দন মিয়া (৩০), মিলন মিয়া (৩০), করম আলী (৫২), বিল্লাল মিয়া (২৯), জাকারিয়া (২৫), ছাদ হোসেন (২৯), মাহবুব মিয়া (১৮), জুয়েল মিয়া (১৯), কুতুব মিয়া (৩০) কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গ্রামবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গ্রামের পঞ্চায়েতের হিসাব রক্ষক হিসেবে ছিলেন আব্দুল আলীর ছেলে ফারুক মিয়া, মৃত আন্তাজ উল্লাহর ছেলে মনু মিয়া ও মৃত মনাফ উল্লাহর ছেলে আওয়াল মিয়া। গ্রামবাসীর সঙ্গে উন্নয়ন ফান্ডের প্রায় ১২-১৪ লক্ষ টাকা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এনিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানসহ এলাকাবাসী কয়েকবার শালিস বৈঠকের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করা হলেও তারা ব্যর্থ হন।

নিহতের ভাই কুতুব উদ্দিন জানান, রোববার সকালের দিকে আমার ভাতিজা শফিকুল ইসলামসহ গ্রামের শফিক মিয়া, আইয়ুব মিয়া ও জুয়েল মিয়া মোটরসাইকেলযোগে দিরাই আসার পথে মনু মিয়ার বাড়ির সামনে এলে মনু মিয়া, মিলিক মিয়া ও ফারুক মিয়াসহ তাদের লোকজন এদের ওপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে গ্রামের লোকজন তাদের উদ্ধারে এগিয়ে এলে ফারুক মিয়ার নেতৃত্বে আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান আমির উদ্দিন।





সূত্র আরও জানায়, প্রায় ৩ বছর ধরে গ্রামের উন্নয়ন ফান্ডের প্রায় ১২-১৪ লক্ষ টাকা ফারুক মিয়া, মনু মিয়া ও আউয়াল মিয়ার কাছে রয়েছে। গ্রামবাসী টাকার হিসাব চাইলে তারা বিভিন্ন টাল বাহানা ও মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রামবাসীকে হয়রানী করে আসছেন।

ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শিবলী আহমেদ বেগ জানান, বিষয়টি সমাধানের জন্য একাধিক বার চেষ্টা করা হলেও সমাধান হয়নি।

দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ফারুক মিয়াকে তার বন্দুকসহ আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। গ্রামের পরিবেশ এখন শান্ত রয়েছে। নিহত আমির উদ্দিনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জে প্রেরণ করা হয়েছে।

-এবিএস/এমএ


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft