For English Version
বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
হোম অনলাইন স্পেশাল

প্রস্তুত রাজধানীর কোরবানীর পশুর হাট

Published : Monday, 5 August, 2019 at 3:34 PM Count : 129

ছবি: মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান রুমন।

ছবি: মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান রুমন।

আসন্ন কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর পশুর হাটগুলো বেচাকেনার জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন ইজারাদাররা। আগামী দুই একদিনের মধ্যেই পশু বেচাকেনার জমে উঠবে বলে মনে করছেন হাট সংশ্লিষ্টরা।

কোরবানি ঈদের বাকি আর মাত্র ছয় দিন। আগামী সোমবার (১২ জুলাই) ঈদ-উল আজহা পালিত হবে। দিন ঘনিয়ে আসায় ঢাকার বাইরে থেকে বিক্রেতারাও রাজধানীর হাটগুলোতে ট্রাক ভর্তি করে গরু আনতে শুরু করেছে। পছন্দের পশু কিনতে ক্রেতারাও ভিড় করতে শুরু করেছেন হাটগুলোতে। তবে হাটে পশু কেনার থেকে দর্শনার্থীর সংখ্যাই বেশি।

রাজধানীর ভাটারা (সাঈদনগর) পশুর হাট, শাহজাহানপুর-খিলগাঁও রেলগেট বাজারের মৈত্রী সংঘের মাঠ, কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন পশুর হাট ঘুরে দেখা গেছে, 
পশু বেঁধে রাখার জন্য মাঠে বাঁশের খুটি দিয়ে স্থান তৈরি করা হয়েছে। গরু ও অন্যান্য পশুর জন্য আলাদা আলাদা স্থান প্রস্তুত করা হয়েছে। ক্রেতাদের চলাচলের জন্য রাস্তা ও পশু কিনে সুশৃঙ্খলভাবে হাট থেকে বের হবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। হাটে গরু বিক্রি করতে আসা পাইকারদের থাকা-খাওয়ার জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন পশুর হাটে রংপুর থেকে গরু নিয়ে এসেছেন ব্যবাসায়ী আলতাম মিয়া। তিনি বলেন, ‘প্রথম অবস্থায় ২০টি দেশি গরু এনেছি। বেচাকেনা ভালো হলে এবং দাম ভালো পেলে 
আরও গরু আনবো।’

থাকা-
খাওয়ার পরিবেশ নিয়ে তিনি বলেন, এই হাটে থাকা-খাওয়ার জন্য ভালো ব্যবস্থা করেছেন ইজারাদাররা। আমাদের গরু বিক্রির টাকার নিরাপত্তা দেবার কথাও বলেছে তারা।

হাটে ক্রেতার সংখ্যা নিয়ে আরেক ব্যবসায়ী কাশেম বলেন, ঢাকাতে গরু বিক্রি হয় ঈদের দু'দিন আগে থেকে। এখনও গরু তেমন আসেনি। আরও দুই/তিন দিন পর থেকে হাটে গরু উঠতে শুরু করবে। তখন ক্রেতার সংখ্যাও বাড়বে।

হাটগুলোতে বেশিরভাগ গরুর দাম ৬০ থেকে ৭০ হাজারের মধ্যে। তবে গরুর আকার ও সৈন্দর্য্যের ওপর দাম হাকা হচ্ছে এক থেকে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত। ৫০ হাজার টাকার নিচে পাওয়া যাবে ছোট গরু।

হাটে ঘুরতে আসা দুই-একজন ক্রেতার সঙ্গে কথা বললে তারা জানায়, হাটে গরু তেমন নেই। যা এসেছে দাম অনেক বেশি যাচ্ছে। আগামী দুই-একদিনের মধ্যে পশুর বাজার জমে উঠবে।

কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন গরুর হাটের ইজারা সংশ্লিস্ট এক ব্যক্তি জানান, আমাদের হাট বেচাকেনার জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকাররা গরু আনতে শুরু করেছে। আমাদের হাটে পাইকারদের থাকা-
খাওয়ার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যারা গুরু কিনতে আসবে তারা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পূর্ণ হাট ঘুরে পছন্দমত গরু কিনতে পারবে। হাটের নিরাপত্তায় সকল ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এ বছর ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন মিলে রাজধানীতে ২৩টি স্থানে অস্থায়ী এবং একটি স্থায়ী গরুর হাট বসছে বলে জানিয়েছে দুই সিটি কর্তৃপক্ষ। হাটগুলোতে কোরবানির পশু প্রতি হাসিল নির্ধারণ করা হয়েছে শতকরা ৫ ভাগ।

জানা গেছে, এই হাটগুলোর মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি 
কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ১০টি এবং দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৪টি হাট থাকবে। উত্তর সিটির স্থায়ী গাবতলীর হাট ছাড়া ৯টি হাটের সর্বোচ্চ দর ১৩ কোটি ৪১ লাখ ৯৩ হাজার ৭৮৬ টাকা। আর দক্ষিণ সিটির ১৪টি হাটের সর্বোচ্চ দর ৮ কোটি ৮৭ লাখ ৫২ হাজার টাকা। সব মিলিয়ে ২৩টি হাট ইজারা দেওয়া হয়েছে ২২ কোটি ২৯ লাখ ৪৬ হাজার ৬২৭ টাকায়।

উত্তর সিটির যেসব স্থানে বসবে পশুর হাট : উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টর, খিলক্ষেত বনরূপা, খিলক্ষেত তিনশ ফুট সড়ক সংলঘ্ন উত্তর পাশে, ভাটারা (সাঈদনগর), ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের খেলার মাঠ, মোহাম্মদপুর বুদ্ধিজীবী সড়ক সংলগ্ন (বছিলা) পুলিশ লাইনসের খালি জায়গা, মিরপুর সেকশন-৬ (ইস্টার্ন হাউজিং) খালি জায়গা, মিরপুর ডিওএইচএসের উত্তর পাশের সেতু প্রপার্টি ও উত্তর খান মৈনারটেক শহিদনগর হাউজিংয়ের খালি জায়গা।

দক্ষিণ সিটির যেসব স্থানে বসবে পশুর হাট : আমুলিয়া মডেল টাউনের আশপাশের খালি যায়গা, উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেট বাজারের মৈত্রী সংঘের মাঠ সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, ঝিগাতলা-হাজারীবাগ মাঠসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, লালবাগ রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ, কামরাঙ্গীর চরের ইসলাম চেয়াম্যানের বাড়ি মোড়, পোস্তগোলা শ্মশান ঘাট, শ্যামপুর বালুর মাঠসহ আশপাশের খালি জায়গা, মেরাদিয়া বাজার সংলগ্ন আশপাশ এলাকার খালি জায়গা, ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের সামসাবাদ মাঠ সংলগ্ন আশপাশ এলাকার খালি জায়গা, কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন বিশ্বরোডের আশপাশের খালি জায়গা, শনির আখড়া ও দনিয়া মাঠ সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, ধূপখোলা ইস্ট এন্ড খেলার মাঠ, ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউয়ারটেক মাঠ সংলগ্ন আশপাশ এলাকার খালি জায়গা ও আফতাবনগর ইস্টার্ন হাউজিং মেরাদিয়া বাজার।

এদিকে, গরুর হাটগুলোতে তিন স্তরের নিরাপত্তার পাশাপাশি জাল নোট সনাক্তকরণ মেশিন এবং বৃষ্টিকে মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হবে। জনদুর্ভোগ ও যানজটের কথা চিন্তা করে এবার নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে রাস্তায় হাট বসালে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও জানিয়েছে দুই সিটি কর্পোরেশন।

ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, পশু ক্রেতা-বিক্রেতাদের কোন রকম হয়রানি বা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি যাতে না হয় সে দিকে পূর্ণ নজর রাখা হবে।

ডিএসসিসির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. জাহিদ হোসেন বলেন, নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে পশুর হাট সম্প্রসারণের বিরুদ্ধে নেয়া হবে কঠিন ব্যবস্থা।

-এমএ



« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft