For English Version
বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯
হোম আন্তর্জাতিক

শ্রীলঙ্কায় মসজিদে হামলা, কারফিউ জারি

Published : Monday, 13 May, 2019 at 3:28 PM Count : 119

চারটি হোটেল ও তিনটি গির্জায় আত্মঘাতী বোমা হামলার পর এবার শ্রীলঙ্কায় বেশ কয়েকটি মসজিদে হামলা চালিয়েছে দুষ্কৃতিকারীরা। এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তিকে মারধরসহ মুসলমানদের দোকানে হামলা চালানো হয়। রোববার দেশটির পশ্চিম উপকূলীয় চিলোও শহরে এ ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রোববার রাতে দেশটির সহিংসতাকবলিত এলাকায় কারফিউ জারি করা হয় বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপের মতো জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, ফেসবুকে একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে দেশটির পশ্চিমের খ্রিস্টান-অধ্যুষিত উপকূলীয় শহর চিলোতে কিছু যুবক মসজিদে ও মুসলিমদের দোকানে পাথর নিক্ষেপ করে। তারা একজনকে পিটিয়েছেও।

সপ্তাহ তিনেক আগে শ্রীলঙ্কার চারটি হোটেল ও তিনটি গির্জায় আত্মঘাতী বোমা হামলা চালায় জঙ্গিরা। এতে প্রাণ হারান অন্তত ২৫০ জন। এ ঘটনার পর থেকেই দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলের মুসলমানরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

শ্রীলঙ্কা পুলিশের মুখপাত্র রুয়ান গুনাসেকারা বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে ভোর ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়। পরে জানানো হয়, ভোর ৪টায় কারফিউ তুলে নেওয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, কথিত ফেসবুক পোস্টে এক ব্যক্তি সিংহলিজ ভাষায় লিখেছেন, আমাদের কাঁদানো কঠিন। এর সঙ্গে মুসলমানদের বিরুদ্ধে স্থানীয় একটি গালি জুড়ে দেওয়া হয়।

পুলিশ ওই পোস্টদাতাকে আটক করেছে। জানা যায়, ৩৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির নাম হামিদ মোহাম্মদ হাসমার। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, ইংরেজিতে ওই পোস্টের অর্থ, বেশি হাসলে একদিন কাঁদতে হবে।

খ্রিস্টান অধ্যুষিত শহরটিতে তার ওই পোস্ট নিয়ে তুলকালাম শুরু হয়। পরে বিক্ষুব্ধ কয়েকজন হাসমারকে মারধর করেন।

স্থানীয় এক মুসলমান নাগরিক বলেন, হামলাকারীরা তিনটি মসজিদে পাথর নিক্ষেপ করে ও মুসলমানদের কয়েকটি দোকানে ভাঙচুর চালায়। আমরা সারা রাত ভয়ে ছিলাম। এখন পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত।

ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, বেশ কয়েকজন যুবক চিৎকার করছেন ও একটি কাপড়ের দোকানে ঢিল ছুড়ছেন।

স্থানীয়রা জানান, ‘নিউ হাসমারস’ নামের দোকানটির মালিক গ্রেফতার হওয়া হামিদ মোহাম্মদ হাসমার।

ইস্টার সানডেতে বোমা হামলায় শ্রীলঙ্কার নেগোম্বো শহরে শতাধিক লোক প্রাণ হারান। প্তাহখানেক আগে শহরটিতে রাস্তায় চলাচল নিয়ে তর্ক-বিতর্ক থেকে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে স্থানীয় মুসলমান ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়।

-এমএ


« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisemnet: 9513663
E-mail: [email protected], [email protected], [email protected], [email protected],   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft